-->

জন্মাষ্টমী পালন করার সঠিক পদ্ধতি | Krishna Janmashtami Rules in Bengali

জন্মাষ্টমী বা কৃষ্ণজন্মাষ্টমী (Krishna Janmashtami) একটি হিন্দু উৎসব। এটি বিষ্ণুর অবতার কৃষ্ণের জন্মদিন হিসেবে পালিত হয়। এর অপর নাম কৃষ্ণাষ্টমীগোকুলাষ্টমীঅষ্টমী রোহিণীশ্রীকৃষ্ণজয়ন্তী ইত্যাদি।হিন্দু পঞ্জিকা মতে, সৌর ভাদ্র মাসের কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী তিথিতে যখন রোহিণী নক্ষত্রের প্রাধান্য হয়, তখন জন্মাষ্টমী পালিত হয়। 



জন্মাষ্টমী পালন করার সঠিক পদ্ধতি

🔰ধরুন জন্মাষ্টমী ৩০ তারিখ হলে, অর্থাৎ ২৯ তারিখ আগের দিন আপনাকে সাত্তিক আহার করে সংযম করতে হবে।
🔰২৯ তারিখ রাত ১০ টার আগে খেয়ে ভাল ভাবে ব্রাশ করে ঘুমিয়ে পড়বেন। পর দিন সকাল ৩০ তারিখ ব্রহ্ম মুহুর্তে উঠে স্নান করে নিবেন।
🔰জন্মাষ্টমির দিন সারা দিন ব্যাপি রাত ১২ টা পর্যন্ত নির্জলা উপবাস করতে হবে। আর যারা অপরাগ বা অসুস্থ তারা একাদশীর মতো দুপুরে অনুকল্প প্রসাদ নিতে পারেন।
🔰তবে জন্মাষ্টমির দিন অবশ্যই পঞ্চশস্য বর্জনীয়। এবং জন্মাষ্টমির দিন বেশি বেশি ভগবানের লীলা শ্রবণ, গীতা পাঠ, হরিনাম জপ, প্রবচন শুনতে পারেন।
🔰বাড়িতে বিগ্রহ বা চিত্রপট থাকলে রাত ১২ টার পর পঞ্চামৃত দিয়ে অভিষেক করতে পারেন
🔰আপনি সেদিন ভগবান কে সব কিছুই নিবেদন করতে পারবেন তবে আপনি পঞ্চশস্য জাতিয় খাবার খেতে পারবেন না। আপনি রাত্রের বেলা ফল, দূধ দিয়ে ভোগ দিয়ে সেই প্রসাদ গ্রহণ করতে পারবেন।
🔰পরদিন রোহিনি নক্ষত্র পার হয়ে গেলে ভগবানকে অন্ন নিবেদন করে সেই অন্ন গ্রহণ করে উপবাস ভঙ করতে হবে।
🔰জন্মাষ্টমী পারণ মন্ত্রঃ
পারণ আরম্ভেঃ- সর্বায় সর্বেশ্বরায় সর্বপতয়ে সর্বসম্ভাবায় গোবিন্দায় নমো নমঃ
পারণ শেষেঃ
ভূতায় ভূতেশ্বরায়
ভূতপতয়ে ভূতসম্ভবায় গোবিন্দায় নম নমঃ
You May Like Also Also Like This

Post a Comment

0 Comments